প্রধানমন্ত্রীকে অশালীন আক্রমণ: কুমিল্লায় আলালের বিরুদ্ধে সাবেক ছাত্রলীগ নেতার জিডি

 

প্রধানমন্ত্রীকে অশালীন আক্রমণ: কুমিল্লায় আলালের বিরুদ্ধে সাবেক ছাত্রলীগ নেতার  জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, তার নাতনি জাইমা রহমানকে নিয়ে পদত্যাগী তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য ছড়িয়ে পড়ার মধ্যে আলালের বক্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের সমালোচনা করতে গিয়ে আলাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে জড়িয়ে অশালীন আক্রমণ করেন। পাশাপাশি ধর্মীয় রীতির প্রতি ইঙ্গিত করেও আপত্তিকর বক্তব্য রাখেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করায় বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের বিরুদ্ধে কুমিল্লার মুরাদনগর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক শরিফুল আলম চৌধুরী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মুরাদনগর থানায় এই অভিযোগ করেন সেই ছাত্রলীগ নেতা। তিনি এর আগে গত ২০১৬ সালের ১৩ মে কুমিল্লার আদালতে প্রধানমন্ত্রীর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া মিথ্যাচার করায় একটি মানহানি মামলারও বাদী।


বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, তার নাতনি জাইমা রহমানকে নিয়ে পদত্যাগী তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য ছড়িয়ে পড়ার মধ্যে আলালের বক্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের সমালোচনা করতে গিয়ে আলাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে জড়িয়ে অশালীন আক্রমণ করেন। পাশাপাশি ধর্মীয় রীতির প্রতি ইঙ্গিত করেও আপত্তিকর বক্তব্য রাখেন।

মুরাদের উক্তির পর বিএনপি তার পদত্যাগ দাবি করেছিল, যা এরই মধ্যে কার্যকর হয়েছে। এখন দলটি তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে আলালের মন্তব্যের বিষয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া আসেনি।

আলালের বিরুদ্ধে থানায় জমা দেয়া অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা শরিফুল আলম চৌধুরী লেখেন, গত ৬ ডিসেম্বর রাত ১১ টায় একটি লিংকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে আলালের ‘অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ’ বক্তব্যের ভিডিও দেখতে পান। এটি সরকার ও দেশের জনগণের জন্য হেয়প্রতিপন্ন ও মানহানিকর বলে মনে করেন তিনি।

এই ঘটনার বিষয়ে সহপাঠীদের সঙ্গে আলোচনা করে অভিযোগ করতে কিছুটা দেরি হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন শরিফুল আলম চৌধুরী।

এ বিষয়ে জানতে বাদী শরিফুল আলম চৌধুরী মোবাইলে ফোনে জানান, আইন সবার জন্য সমান। মুরাদ হাসানের বক্তব্য যদি আইন বিরোধী হয় তাহলে বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জড়িয়ে যে নোংরা বক্তব্য দিয়েছেন তা নিঃসন্দেহে অপরাধ করেছেন তাই এর বিচার হওয়া দরকার।

মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাশিম বলেন, ‘অভিযোগটি আমরা জিডি হিসেবে গ্রহণ করেছি। এখন এটি আমরা সাইবার ক্রাইম ইউনিটে পাঠাব। তারা তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন